1. kamrulcse1@gmail.com : janatarkontho_24 : জনতারকণ্ঠ
  2. mostufakamalbd@gmail.com : মোস্তফা কামাল : মোস্তফা কামাল
  3. shariful.ja81@gmail.com : মোহাম্মদ শরীফুল ইসলাম : মোহাম্মদ শরীফুল ইসলাম
শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ১১:৩৭ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি :
আপনার আশপাশে ঘটে যাওয়া যেকোনো ঘটনা বা যেকোনো বিষয়ে জনতারকণ্ঠে লিখে পাঠান।। লেখা পাঠাতে ইমেইল করুন : newsjanatarkontho@gmail.com

রাজশাহীতে মামলার ভয় দেখিয়ে ৯৫ লাখ টাকা আত্মসাৎ, গ্রেফতার ২

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২০ অক্টোবর, ২০২১, সময়: ১২:৪৩ pm
  • ১০ বার

জনতার কণ্ঠ ২৪.কম

রাজশাহীতে দুর্নীতি মামলার ভয় দেখিয়ে এক চিকিৎসকের কাছ থেকে ৯৫ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার ঘটনায় প্রতারক চক্রের দুই সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃত হলো—নগরীর রাজপাড়া থানার লক্ষ্মীপুর মিঠুর মোড় এলাকার একেএম মোতাহারুল ইসলামের ছেলে তাসফিন আহমেদ (৩৩) ও ফয়সাল আহমেদ (৩৮)। রাজশাহী মহানগর পুলিশের মুখপাত্র ও অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (সদর) গোলাম রহুল কুদ্দুস জানান, ডা. মো. আজিজুল হক ওরফে আব্দুল্লাহর স্ত্রীর বড় বোনের ছেলে তাসফিন ও ফয়সাল। আত্মীয়তার সূত্র ধরে ডা. আজিজুলের বাড়িতে আসা-যাওয়া ছিল তাদের। তাসফিন, ফয়সাল ও ফয়সালের ভায়রা আসামি রুবেল সরকার রাসেলের (৩৩) যোগসাজশ ডা. আজিজুলকে হাইকোর্টে দুর্নীতি মামলার ভুয়া কাগজ ও আয়করের ভুয়া কাগজ দেখায়। এরপর রুবেল নিজেকে ডিবি পুলিশ ও ওয়ারেন্ট অফিসার পরিচয় দিয়ে চলতি বছরের ১৫ জুলাই থেকে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ৯৫ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়।

তারা পর্যায়ক্রমে টাকা নেওয়ার সময় ডা. আজিজুলকে জানায়, দুর্নীতি দমন ব্যুরো, আয়কর বিভাগ এবং হাইকোর্টের রায়ের বিষয়ে কাগজ বের হতে সময় লাগবে। এ বিষয়ে কাউকে কিছু না জানাতে বলে তারা। অন্য কেউ জানলে তার ও তার পরিবারের যেকোনও বড় ধরনের ক্ষতি হতে পারে বলেও ডা. আজিজুলকে ভয় দেখায়।

পরবর্তীতে ডা. আজিজুল খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন, হাইকোর্টে দুর্নীতি ও আয়করের মামলার বিষয়টি ভুয়া। আসামিরা যোগসাজশে প্রতারণা করে তার কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। প্রতারণার মাধ্যমে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার বিষয়টি আসামি ফয়সালের কাছে জানতে চাইলে তিনি অস্বীকার করেন। ঘটনার প্রেক্ষিতে রাজপাড়া থানায় একটি নিয়মিত মামলা হয়।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই কাজল কুমার নন্দী ও তার টিম আসামিদের অবস্থান শনাক্ত করে গ্রেফতার অভিযান শুরু করেন। অবশেষে সোমবার (১৮ অক্টোবর) রাত ২টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় অভিযান চালিয়ে তাসফিন ও ফয়সালকে বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে আসামিরা টাকা হাতিয়ে নেওয়ার কথা স্বীকার করেছে।  

পলাতক অপর আসামিকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত আছে এবং গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানান গোলাম রহুল কুদ্দুস।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..