1. kamrulcse1@gmail.com : janatarkontho_24 : জনতারকণ্ঠ
  2. mostufakamalbd@gmail.com : মোস্তফা কামাল : মোস্তফা কামাল
  3. shariful.ja81@gmail.com : মোহাম্মদ শরীফুল ইসলাম : মোহাম্মদ শরীফুল ইসলাম
বুধবার, ২৩ জুন ২০২১, ০৮:৪০ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি :
আপনার আশপাশে ঘটে যাওয়া যেকোনো ঘটনা বা যেকোনো বিষয়ে জনতারকণ্ঠে লিখে পাঠান।। লেখা পাঠাতে ইমেইল করুন : newsjanatarkontho@gmail.com
শিরোনাম :
ঐতিহাসিক পলাশী দিবসে সোশ্যাল মিডিয়ায় যা লিখছেন নেটিজেনরা দেশে করোনায় প্রাণ গেল আরো ৮৫ জনের, নতুন শনাক্ত ৫৭২৭ দুই হাত ও এক পা উদ্ধারের পর দেহ উদ্ধার : মস্তক খুঁজছে পুলিশ সখিপুরে আনসার-ভিডিপির বৃক্ষ রোপন সখিপুরে এক অসহায় নির্যাতিত নারী থানার এস আই কে প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছে টাঙ্গাইল ও এলেঙ্গা পৌর সভায় সাত দিনের কঠোর বিধিনিষেধ জারি টাঙ্গাইলে দ্বিতীয় ধাপে ১১৩০ পরিবার পেল প্রধানমন্ত্রীর উপহার করটিয়ায় অগ্নিকান্ডে ৫ দোকান পুড়ে ছাই, ১২ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি সেই অমির বাড়ি টাঙ্গাইলে, এলাকাবাসীর কাছ থেকে জানা গেল আদ্যোপান্ত টাঙ্গাইল বিএনপির উদ্যোগে বৃক্ষ রোপন

ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট পাওয়া গেছে বাংলাদেশে

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৮ মে, ২০২১, সময়: ৩:৪২ pm
  • ৬০ বার

জনতার কণ্ঠ ২৪.কম

করোনা ভাইরাসের ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট পাওয়া গেছে বাংলাদেশে। রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর) আজ শনিবার (৮ মে) এই তথ্য জানিয়েছে। 

আইইডিসিআর এর প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ডা. এস এম আলমগীর জানান, রাজধানীর বেসরকারি এভারকেয়ার হাসপাতালে নেওয়া স্যাম্পল পরীক্ষা করে এই ভ্যারিয়েন্ট পাওয়া গেছে। নমুনাগুলো থেকে জিনোম সিকোয়েন্স করা হয় আইইডিসিআর এর ল্যাবে। তথ্য আপলোড করেছে ইনস্টিটিউট ফর ডেভেলপিং সায়েন্স অ্যান্ড হেলথ ইনিশিয়েটিভস (আইদেশি)।

জিসএইডের তথ্য বলছে, ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট বি-১৬১৭ যাদের শরীরে পাওয়া গেছে সেই দুই জনের বয়স ৪১ এবং ২৩। তারা ভারতে ভ্রমণে গিয়ে আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের একজন খুলনার এবং একজন ঢাকার। দুই জনই পুরুষ। তাদের নমুনা সংগ্রহ করা হয় গত ২৮ ও ২৯ এপ্রিল। তাদের একজনের ভ্যাকসিন নেওয়ার কোনও ইতিহাস নাই। আরেকজনের বিষয়ে এ সংক্রান্ত কোনও তথ্য নেই। এই তথ্যগুলো আইইডিসিআরের পক্ষ থেকে ডাটাবেজে আপলোড করা হয়েছে। 

উলেখ্য, ভারতে এই ভ্যারিয়েন্ট প্রথমে মহারাষ্ট্রে শনাক্ত হয় গত ৫ অক্টোবর। সম্প্রতি এটি ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে। প্রায় প্রতিদিনই রেকর্ড ভাঙছে মৃত্যু ও শনাক্তের। আজ শনিবারও করোনাভাইরাস মহামারিতে একদিনে মৃত্যুর নতুন রেকর্ড তৈরি হয়েছে দেশটিতে। সরকারি হিসাবে ভারতে এদিন মৃত্যু হয়েছে চার হাজার ১৮৭ জনের। আর একই দিন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে চার লাখ এক হাজারের বেশি মানুষ।

ভারতে বর্তমানে মোট সক্রিয় রোগীর পরিমাণ ৩৭ লাখ ২৩ হাজার ৪৪৬ জন। মোট মৃতের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে দুই লাখ ৩৮ হাজারের বেশি।

ভারতের নতুন ধরনের করোনা ভ্যারিয়েন্ট কোনোভাবেই যাতে বাংলাদেশে ছড়াতে না পারে সেজন্য সীমান্ত ১৪ দিনের জন্য বন্ধ ঘোষণা করে বাংলাদেশ। গত ২৬ এপ্রিল থেকে এই নির্দেশ কার্যকর হয়েছে। তবে যেসব বাংলাদেশির ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে যাচ্ছে তারা ভারতে বাংলাদেশি দূতাবাসের বিশেষ অনুমতি নিয়ে দেশে ফিরছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..